বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৫ মার্চ ২০২১

কক্সবাজার সৈকতে বঙ্গবন্ধু

 

 

রাজনৈতিক জীবনের পুরোটা সময় মানুষের দুঃখ-দুর্দশার খবর নিতে সমগ্র বাংলাদেশ ঘুরে বেড়িয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এরই ধারাবাহিকতায় কক্সবাজারেও এঁকেছেন নিজের পদচিহ্ন। কক্সবাজারের সিনিয়র সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ জানান, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সর্বপ্রথম ১৯৫৮ সালে কক্সবাজার সফর করেন। সর্বশেষ ১৯৭৫ সালের ১০ জানুয়ারি কক্সবাজার সফর করেছিলেন তিনি। এভাবে তিনি বিভিন্ন কারণে ১৩ থেকে ১৪ বার কক্সবাজার এসেছিলেন।’ কক্সবাজারকে ঘিরে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের অবদানের কথা উল্লেখ করে সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ আরও জানান, ওই সময়ে তিনি কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের বালুকাময় ১০০ একর জমিতে ঝাউগাছ বনায়নের নির্দেশনা দেন বনবিভাগকে। এ কারণে প্রাকৃতিক ঘূর্ণিঝড় ও সামুদ্রিক জলোচ্ছ্বাস থেকে উপকূলীয় অঞ্চল রক্ষা এবং সৈকতের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত দেশি-বিদেশি পর্যটকদের আকৃষ্ট করেছে। কক্সবাজারের তরুন লেখক কালাম আজাদ তার একটি গ্রন্থে লিখেছেন, ‘স্বাধীনতা পূর্ব ও পরবর্তী সময়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ১২ বার কক্সবাজার সফর করেছেন। কক্সবাজারের রাজনৈতিক ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে বঙ্গবন্ধুর ভূমিকা অনবদ্য। ১৯৬৯ সালে কক্সবাজার সফরের এক পর্যায়ে সমুদ্র সৈকত ঘুরে দেখেন তিনি। বঙ্গবন্ধু তাঁর জীবদ্দশায় অন্তত ১২ বার কক্সবাজার সফর করেছেন তিনি।

এখানে উল্ল্যেখ্য যে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৫ সালের ১০ ফেব্রুয়ারী কক্সবাজারস্থ বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের সাগরিকা রেস্তোরাঁয় বসে সুধী সমাবেশে বক্তব্য রেখেছিলেন।

 

তথ্যসূত্র: বাংলা ট্রিবিউন, আবদুল আজিজ, কক্সবাজার, ০৭ মার্চ ২০২১, ১১:০০

Share with :

Facebook Facebook